মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

সিটিজেন চার্টার
কার্যক্রমের ভিশন বা লক্ষ্য
• গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন একটি প্রচার ও সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান। এ অফিসের কার্যক্রম জেলার তৃনমূল পযন্ত বিস্তৃত।
•  জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে, বিশেষ করে সংবাদপত্রের আওতাবহির্ভূত এবং বেতার ও টেলিভিশন নেটওয়ার্কের বাইরে যে বিশাল পশ্চাদপদ জনগোষ্টী রয়েছে তাদেরকে সরকারের নীতিমালা, কমসূচি, বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কমকান্ড এবং স্বাস্থ্য ও সামাজিক বিষয় সম্পর্কে অবহিতকরণ শিক্ষিতকরণ ও উদ্বুদ্ধকরণই গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও তথ্য অফিসের মূল উদ্দেশ্য।
• জনগনের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে জাতিসংঘ প্রণীত মিলিনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোলস্ (এমডিজি) এবং সরকারের দারিদ্র বিমোচন কৌশল (পিআরএস) এ লক্ষ্যমাত্রা অজনের জন্য জনগণকে সস্পৃক্ত করতে এ অধিদপ্তর ও তথ্য অফিস অব্যাহত কাজ করে যাচ্ছে।
• জনসাধারনের সমস্যা ও প্রতিক্রিয়াকে ফিডবেক আকারে সরকারের  কাছে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্বও গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিসের।
• আন্তঃব্যক্তিক বা সরাসরি যোগাযোগ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সরকারের সাথে জনগণের  যোগসূত্র গড়ে তুলতে কাজ করে এই অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস।
• স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন এবং জন্মনিয়ন্ত্রণ ও পরিকল্পিত পরিবার গঠনে ষাটের শতকে এই অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস পথিকৃতের ভূমিকা পালন করে।
• ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র পরিদর্শন ও তত্ত্বাবধান করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় ভূমিকা রাখা।
• বতমানে জনগণকে বিভিন্ন সামাজিক ও অথনৈতিক ইস্যুতে উদ্বুদ্ধ ও সচেতন করার জন্য তৃণমূল পর্যায়ে নেটওয়ার্ক সম্পন্ন গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস- এখনো আন্ত:ব্যাক্তিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে অনন্য ও বৃহত্তম প্রতিষ্ঠান।
• এ্যাডভোকেসি প্রোগ্রাম বাস্তবায়নের মাধ্যমে বতমানে এ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস জনগণের একটি অন্যতম সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানে উন্নীত হয়েছে।
 
সিটিজেন চার্টার
 
@গণযোগাযোগ অধিদপ্তর সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের একটি প্রচারধর্মী সেবামূলক প্রতিষ্ঠান।
@দেশের ৬৪টি জেলা ও ৪টি পার্বত্য উপজেলাসহ মোট ৬৮টি তথ্য অফিসের মাধ্যমে এ অধিদপ্তর সরকারের কর্মসূচি
ও নীতি সম্পর্কে দেশের জনসাধারণকে অবহিত, শিক্ষিত ও উদ্বুদ্ধ করে দেশের উন্নয়নে সম্পৃক্ত করে।
@বিভিন্ন সামাজিক, অর্থনৈতিক ও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত ইস্যুতে আন্তঃব্যাক্তিক যোগাযোগ ও সুনির্দিষ্ট প্রচার কৌশল অবলম্বন করে এডভোকেসি প্রোগ্রাম বাস্তবায়নের মাধ্যমে এ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিস জনসাধারণকে সেবা প্রদান করে থাকে।
 
গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিসের গ্রাহক
@গ্রামীন কৃষক, শ্রমিক, মহিলা এবং শিশুসহ দেশব্যাপী তৃণমূল পর্যায়ের সুবিধাবঞ্চিত এবং অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে অনগ্রসর বিশাল জনগোষ্ঠী গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের গ্রাহক।
 
প্রচারের মাধ্যমে সেবা প্রদানের ক্ষেত্র সমূহ
@ শিশু ও নারী শিক্ষা          @ টিকাদান কর্মসূচি                 @এইচআইভি এইডস প্রতিরোধ
@ শিশু ও নারী অধিকার       @স্যানিটেশন                       @মাদকের অপব্যবহাররোধ
@ জন্ম নিয়ন্ত্রণ ও জন্ম নিবন্ধণ  @বার্ড ফ্লু প্রতিরোধ                 @বৃক্ষরোপণ
@ নিরাপদ মাতৃত্ব              @নারী  পুরুষের বৈষম্যরোধ       @আত্ম ও নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি
@ নির্বাচনী প্রচার              @বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরোধ     @সরকারের নানামূখী উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রচার
@ ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্ত্র পরিদর্শন ও তদারকি এবং প্রচার।
 
সেবা প্রদানের প্রদ্ধতি বা কৌশল
@ভ্রাম্যমান চলচ্চিত্র প্রদর্শণী                     @উদ্বুদ্ধকরণ লোকসঙ্গীতানুষ্ঠান
@সেমিনার/মহিলা সমাবেশ/কমিউনিটি সভা           @আলোচনা সভা
@শিশু, কিশোর ও নারী মেলা                            @কথামালা প্রচার (মাইকিং)
@খন্ড সমাবেশ                                             @শব্দযন্ত্র স্থাপন
@অশ্লীলতা বন্ধে সিনেমা হল পরিদর্শন              @জনমত প্রতিবেদন
 
জনগণ কিভাবে উপকৃত হয়
জনগণের জীবনমান উন্নয়নের সাথে সংশ্লিষ্ট বিষয়- শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও উন্নয়ন সম্পর্কে অধিদপ্তরের প্রচার কৌশল প্রদর্শনের মাধ্যমে অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিসের দক্ষ কর্মচারীবৃন্দ তৃণমূল পর্যায়ের জনগোষ্ঠীকে উদ্বুদ্ধ করেন। এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষ জীবনমান উন্নয়নে শিক্ষা লাভ করে থাকেন।
 
কিভাবে সেবা পাওয়া যায়
গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও জেলা তথ্য অফিসের কার্যক্রম বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যাক্তি, শিক্ষক, ধর্মীয় নেতা ও কমিউনিটি লিডারদেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তাদের মাধ্যমে অথবা সরাসরি গণযোগাযোগ অধিদপ্তর বা জেলা তথ্য অফিসমূহে যোগাযোগ করে সাধারণ মানুষ এ অধিদপ্তরের সেবা গ্রহণ করতে পারেন।

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter